ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারী ২০২০

কলিগের সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক কেমন হওয়া উচিত

:: সিটি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০১৯-০৮-৩০ ২০:১৯:০০

দিনের বেশিরভাগ সময় সহকর্মীদের পাশাপাশি থাকতে হয়। কাজের পাশাপাশি অনেক বিষয়ে শেয়ার করা হয়। এজন্য সবার সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখাটা খুব জরুরি। তবে সেই সুসম্পর্ক ব্যক্তিগত সম্পর্ক না হওয়াই ভালো।

কারণ, এধরনের সম্পর্কে জড়ালে মুখোমুখি হতে হবে অনেক ধরনের পরিস্থিতির। এসবের জন্য প্রস্তুতি আছে তো?

একই অফিসে কাজ করতে করতে হয়ত নারী-পুরুষ সহকর্মী কোনো কোনো ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়তে পারেন। দু’জনের মধ্যে নির্ভরতা এবং ভালোলাগা তৈরি হতেই পারে। তবে এই জাতীয় সম্পর্কে না জড়ানোই আপনার ক্যারিয়ারের জন্য ভালো। কেননা, কোনো কারণে আপনাদের সম্পর্ক ভেঙ্গে গেলে দু’জনের জন্যই কাজ সঠিক ভাবে চালিয়ে নেওয়া হবে কঠিন।

অফিসের কলিগদের মধ্যে আপনাদের সম্পর্ক নিয়ে কথা হবেই, এটা খুব স্বাভাবিক, অনেকেই আবার এটাকে আপনার বিরুদ্ধে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করতেও ছাড়বে না।

আপনার অফিসের নিয়মগুলো জেনেই এধরনের সম্পর্কে জড়ানোর সিদ্ধান্ত নিন। যদি দেখেন অফিস বিষয়টি সুন্দরভাবেই নিচ্ছে, তবে ঠিক আছে। আর যদি পজেটিভ না হয়, কিন্তু আপনারা সম্পর্কের বিষয়ে সিরিয়াস তবে একজন অন্য কোথাও চাকরির চেষ্টা করুন।

না হলে সম্পর্কটিকে বন্ধুত্বের মধ্যেই আটকে রাখুন। তবে বিশেষ সম্পর্ক হলো না বলে স্বাভাবিক কলিগদের সঙ্গে যেমন সম্পর্ক থাকে এটাও নষ্ট করবেন না।

সব থেকে জরুরি কথা, আপনার সামাজিক ও পারিবারিক অবস্থা কেমন তা আগে বুঝে নিন। নিজের ভালোলাগাকে প্রাধান্য দিতে গিয়ে পরকীয়ার মতো অনৈতিক সম্পর্কে জড়ানো যাবে না, যার প্রভাব অনেকের পরিবার ও পেশার ওপরে পড়ে।

সহকর্মীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে, দেখা হয় হাসিমুখে কথা বলুন। তার দিনকাল কেমন যাচ্ছে খোঁজ নিন। কাজের ক্ষেত্রে সে কোনো সমস্যায় পড়লে তাকে আপনার সাধ্যমতো সাহায্য করুন, তার পাশে দাঁড়ান। আর এভাবেই সহকর্মীদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠবে।

কর্মক্ষেত্রে বেতন এবং পদবীর বিচারে নয়, এমনিতেই সবাইকে শ্রদ্ধা করুন। সহকর্মীরা কেমন পরিবার থেকে এসেছে এটা বিবেচনা না করে, তার কাজের মূল্যায়ন করুন।